বিশ্বের ভয়ঙ্করতম সেতুগুলি, আধুনিক ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের অলৌকিক সৃষ্টি যা আপনাকে শিহরিত করবে…

জর্জ ওয়াশিংটন ব্রিজ, নিউইয়র্ক

৩ থেকে ৪ কিমি বিস্তৃত একটি সেতু যা নিউইয়র্ক শহরের মাঝখান দিয়ে চলে গেছে। বছরে ১০ কোটি যানবাহন এই সেতুর ওপর দিয়ে চলাচল করে। এটি বিশ্বের সবচেয়ে ব্যস্ত সেতু এবং পূর্ব উপকূল বরাবর একটি গুরুত্বপূর্ণ সংযোগ তৈরি করে।

চেসপেক বে ব্রিজ, অ্যানাপোলিস, মেরিল্যান্ড

রাজধানীর বাইরে অ্যানাপোলিসে অবস্থিত এমডি বিশ্বের বৃহত্তম সেতুগুলির মধ্যে একটি। চেসপেক বে সেতুটি প্রায় ৫কিমি বিস্তৃত। সংকীর্ণ লেন এবং বাতাসের উচ্চচাপের জন্য এই সেতুর যাত্রাপথকে আরও ভয়ঙ্কর করে তুলেছে।

কুশমা-গায়দি ব্রিজ, নেপাল

Kusama-gayadi bridge, Nepal

নেপালের কুশমা-গায়দি সেতুটি হল সবচেয়ে লম্বা ঝুলন্ত সেতু।  প্রথম নজরেই সেতুটিকে ভয়ঙ্কর মনে হয়। এই সেতুটি প্রায় ৪৫০ ফুট প্রসারিত একটি গভীর খাদের ওপর দিয়ে প্রসারিত হয়ে গায়দিচরের সঙ্গে কুশমার মধ্যে সংযোগ  রক্ষা করে। ক্ষুদ্র গবাদি পশু থেকে নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী, সবকিছুই পরিবহন করা হয়। সেতুটি একটি লাইফলাইন হিসেবে কাজ করে।

মিলাউ ভাইস্যাক্ট, মিলাউ-ক্রিসেলস, ফ্রান্স

ভিটিম নদী সেতু, সাইবেরিয়া, রাশিয়া

পৃথিবীর সবচেয়ে বিপজ্জনক রাস্তাগুলির মধ্যে একটি হলো সাইবেরিয়াতে বাইকল-আমুর মেইনলাইন (বাম)। এই বরফের ভূখণ্ডের মধ্য দিয়ে ড্রাইভিং যথেষ্ট কঠিন হতে পারে, তবে সম্ভবত ভিটিম নদী অতিক্রম করার থেকে বিপজ্জনক অংশ আর নেই। পুরানো রেলপথ সেতুটি দিয়ে একবারে একটি মাত্র গাড়িই  যাতায়াত করতে পারে । একটু অসতর্ক হলেই ৫০ ফুট গভীর জমা জল থেকে রক্ষা পাওয়ার কোনও রাস্তা নেই।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.