গাছের গুড়ির মধ্যে আটকে ৫০ বছরের পুরনো কুকুরের মমি- “স্টাকি”

১৯৮০ সাল, দক্ষিণ জর্জিয়ার চেস্টনাট ওকসে একদল কাঠুরিয়া বড় একটি গাছ কাটতে গিয়ে অদ্ভূত জিনিস লক্ষ্য করেন। গাছের গুড়ির মাঝখানে আটকে রয়েছে একটি কুকুরের মমি। লোগারদের জন্যে এটি একটি বিস্ময়কর আবিষ্কার ছিল।

জানা যায় “স্টাকি” নামের কুকুর ছানাটি ৫০ বছর ধরে গাছটির মধ্যে আটকে ছিল। “স্টাকি”-র দাঁতগুলি বাইরের দিকে বেরিয়ে ছিল, যার থেকে স্পষ্ট যে মৃত্যুর আগে পর্যন্ত সে প্রাণ রক্ষার লড়াই চালিয়ে গেছে।

মমিটি পর্যবেক্ষণের পর বিশেষজ্ঞরা এই সিদ্ধান্তে উপনীত হন, শিকারের পেছনে ধাওয়া করার সময় গাছের গুড়ির মধ্যে থাকা গর্তের ভেতর প্রবেশ করার পর আটকে পরে মৃত্যু হয় স্টাকির।

খোলা জায়গায় মৃতদেহটি পরে থাকলে হয়ত হাড় ছাড়া কিছু অবশিষ্ট থাকত না, যেহেতু গাছের ভেতর গর্তের মধ্যে আটকে ছিল, অন্য কোন পশুপাখি খেতে পারেনি। চেস্টনাট ওকসে যে ট্যানিন রস থাকে তা  প্রাকৃতিক উপায়ে প্রক্রিয়াজাত করে “স্টাকি”-র শরীরকে মমিতে পরিণত করে।

বর্তমানে কাঠের সমাধিতে শায়িত “স্টকি”-র মমিটিকে বিশ্বের কাছে প্রদর্শনের জন্য দক্ষিণ বনভূমি বিশ্ব জাদুঘরে রেখে দেওয়া হয়েছে।

You may also like...

Leave a Reply

%d bloggers like this: