শুভ-অশুভের ১৩ সংখ্যা

“বিশ্বাসে মিলায় বস্তু, তর্কে বহুদূর”- প্রবাদ

প্রাচীণ সময় থেকেই ১৩ সংখ্যাটিকে অশুভ বলে মনে করা হয়। রোমানরা তেরো সংখ্যাকে মৃত্যু এবং ধ্বংসের প্রতীক বলে মনে করেন।  নর্স পুরাণের কিংবদন্তীরা দাবি করেন যে ভোজের সময়ে তেরো জন অতিথি মন্দ আত্মার প্রতিনিধিত্ব করে। ক্রিশ্চিয়ানরা বিশ্বাস করেন শেষ রাতের ভোজন(Last Supper) থেকে এই সংখ্যাটি খারাপ ভাগ্যকে নিয়ে আসে, যখন যীশু তার ১২ জন শিষ্যের সাথে ডিনার করতে বসেন। কিছু মানুষ মনে করে যে ১৩ জনের মধ্যে প্রথম যে ব্যক্তি ডিনার টেবিল ছেড়ে উঠবেন, তিনি বছর শেষ হওয়ার আগেই মারা যাবে।

 

১৩ যখন অশুভ

    • তেরোতম অ্যাপোলো স্পেস মিশনটি অ্যাপোলো ১৩ নামে পরিচিত ছিল। ১৯৭০ সালের ১৩ এপ্রিল, মহাকাশ যানটিতে বিস্ফোরণের ফলে অক্সিজেন নিঃসৃত হতে থাকে। মহাকাশ যানটি দুদিন আগেই ১ টা বেজে ১৩ মিনিটে  নিক্ষেপ করা হয়েছিল।
    • ১৯২৮ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর, হ্যারিকেন ঝড়ের ফলে ফ্লোরিডা এবং ভার্জিন আইল্যান্ডে ২০০০ মানুষের মৃত্যু হয়। ২৫০ মিলিয়ন ডলার ক্ষতি হয়।
    • প্যারিসে ১৩ তলার কোনো ইমারত তৈরী করা হয় না।
    • ইটালিতে ন্যাশনাল লটারি থেকে ১৩ সংখ্যাটিকে বাদ দেওয়া হয়েছে।
  • আমেরিকাতে মাসের ১৩ তারিখ প্রচুর পরিমানে ট্রেন, বিমানের টিকিট বাতিল হয় এবং ব্যবসায়িক কাজকর্ম কম হয়।

১৩ যখন শুভ

  • চিনে এবং মধ্য আমেরিকার মায়ান প্রদেশে ১৩ সংখ্যাটিকে শুভ বলে মনে করা হয়।
  • বৌদ্ধরা ১৩ জন বুদ্ধকে শ্রদ্ধা জানান এবং গোঁড়া ইহুদিদের প্রার্থনা বইতে ১৩টি নীতির কথা বলা আছে।

You may also like...

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.