অমরত্ব

আবার নতুন করে পাওয়া, অমরত্ব! সমুদ্র এখানে বয়ে চলে, শ্বাশ্বত সূর্যের আলো মেখে।

Advertisements

আমার মেঘলা মনে বৃন্দাবনী…বাঁশির সুরে রাধা পিয়াসী…

একটা নৌকা ছিল তোমার ঘাটে বাঁধা আর একটাতে শুধুই ফন্দি ফিকির ভরা, মাঝ দরিয়ায় জলের আঁকিবুকি মনটা খালি ভার হয়ে যায় বুঝি পদ্ম পাতায় জলের টলমল স্ফটিক জলে পদ্ম কোথায় পাবি!!! হঠাৎ যখন মেঘলা আকাশ ঝাঁপিয়ে পড়ে নদীর বুকে কিছুটা তার আমার মনেও ছড়িয়ে পড়ে হঠাৎ তখন আমার মেঘলা মনে বৃন্দাবনী বাঁশির সুরে রাধা পিয়াসী... Continue Reading →

‘হাজার বছর পরে, দূর অন্ধকারে’… শান্তি নিয়ে এসেছিল ‘নাটোরের বনলতা’ কবে?

ওঁরা বাঁচতে চেয়েছিল ঋত্বিক ঘটকের মেঘে ঢাকা তারাতে কোমল গান্ধারের সুবর্ণ রেখার তীরে ওঁরা বাঁচতে চেয়েছিল বিভূতিভূষণের পথের পাঁচালীতে বাঁচতে ওঁরা পারেনি মৃত্যুর ঠোঁটে ঠোঁট রেখে বলে আমার যাবার সময় হল তবে কুয়াশা হয়ে এসে বলে শান্তি কি পাব তবে? 'হাজার বছর পরে, দূর অন্ধকারে' শান্তি নিয়ে এসেছিল 'নাটোরের বনলতা' কবে?   দালিয়া

ছাদের ঘরে চাঁদের আলো ওইটুকুতো আমারই থাক… তোমার সীমায় আমার প্রবেশ আমার বুকেই শেষ হয়ে যাক…

ছাদের ঘরে চাঁদ জ্বলেছে আলোয় নাকি ঘর ভরেছে ছাদের ঘরে আকাশ কাছে হাত বাড়ালেই শুধু ডাকে যখন তখন রাত বিরেতে হঠাৎ যদি দেখে ফেলে আমি কি আর এতই নিলাজ! লজ্জাসরম আমিও যে পাই... তোমার আকাশ বিশাল জানি আমার হৃদয় ক্ষুদ্র খালি তাই তো শুধু ভুল হয়ে যায় তোমার আকাশ আমার ভাবি তবে তোমার আকাশ তোমারই... Continue Reading →

পুরনো ঝালোরের পাশে ধুলো পড়া ফ্রেমটাতে, ধুলো ঝেড়ে কবিতাতে এঁকে দিল কবিতাটা…

পুরনো ঝালোরের পাশে ধুলো পড়া ফ্রেমটাতে, ধুলো ঝেড়ে কবিতাতে এঁকে দিল কবিতাটা, কবি, তবু কবি নয়, আঁতেল বলেও ভুল হয় ভুল, তবু ভুল নয়; তাই পুরনো ঝালোরের পাশে পড়ে থাকা ফ্রেমটাতে আবার ধুলো পড়ে যায়... আমার চোখ জ্বলে যায়... মন জ্বলে যায়... তবু হৃদয় তোকেই ভালোবেসে যায় তোর চাওয়ার দাবি তোকেই দিতে পারি আসলে তুই... Continue Reading →

ব্যস্ততায় বিষ্ফোরণ!

ব্যস্ত শহর শুধুই ছুটে চলেছে থামার কোনো অবকাশ নেই...   হঠাৎ একটা প্রচণ্ড আওয়াজ বিষ্ময়ে চমকে উঠল শহরটা, চারিদিকের ব্যস্ততা ভঙ্গ হল বিষ্ফোরণের শব্দে...   তবে কি সব ব্যস্ততা শেষ হয়ে গেল? সকলের চোখেমুখে অজস্র প্রশ্ন আর ভয়! চারিদিকে ছিন্নভিন্ন দেহ...শবের স্তূপ... আগুনের বিক্ষিপ্ত শিখায় ঝলসানো মুখ...   ছুটে এল পুলিশ, সংবাদমাধ্যমের ক্যামেরা; দূরে অ্যাম্বুলেন্সের সাইরেন,... Continue Reading →

হিমেল কালো বৈশাখেতে…মনের মাঝে মন জমেছে…

হিমেল কালো বৈশাখেতে, মনের মাঝে মন জমেছে, কয়েক ফোটা বৃষ্টি তাতে, ঠোঁটের কোণে ঠোঁট ছুঁয়েছে ।। একতারাতে ডুব দিয়েছে, ছন্নছাড়া বাউল প্রেমিক, মন মজেছে প্রেম ভেলাতে, সুরের তালে তাল মেলাতে ।। পিয়ার পথে বাঁধ না সেধে, বৃষ্টি তুমি আবার এসো, আমার মনে পিয়ার প্রবেশ, অঝোর ধারায় এবার এসো।। দালিয়া

মুখ- কে থাকে আর নাট্যশালায় নায়ক চিরদিন

আমার মুখে স্বর্গ মর্ত্য আমার মুখে পাপ ঘাস আমার হাড়-মাংস ঝাঁপানো মেঘ বাপ আমার মুখে জন্ম-মৃত্যু আমার মুখে ঋণ কে থাকে আর নাট্যশালায় নায়ক চিরদিন আমার মুখে আধি-ব্যাধি আমার মুখে ভয় নুনের বস্তা লুঠ হয়ে যায় হয় না সূর্যোদয় আমার মুখে ক্ষ্যাপা-চুমো আমার মুখে সিঁড়ি রাজ্যে রাজ্যে বস্ত্র হরণ চোখ বাঁধা ঈশ্বরী আমার মুখে রঙ্গমঞ্চ... Continue Reading →

এই বার আসি ( কবি শক্তি চট্টোপাধ্যায়কে স্মরণ করে)

জন্ম এবং পুরুষ ধীরে ধীরে যেতে যেতে আজ আমি একবার তুমি  আমরা সকলেই।  কে যায় এবং কে কে এখানে সেই অস্থিরতা  কীসের জন্য? মানুষ কি ভাবে মরে পাতার শোকে ছায়ামরীচের বনে শবযাত্রী সন্দিগ্ধ ও চির প্রণম্য অগ্নি কার কারনেশন কলকাতার ভোরে। শৈশবস্মৃতি-ঝর্ণা, মুকুর, অন্ধকার শালবন ঝাউয়ের ডাকে যেতে যেতে হৃদয়পুর সুবর্ণরেখার জন্ম ধীরে ধীরে সে,... Continue Reading →

ছিন্নমূল- অবুঝ হাতটা আজও আনমনে সেই হাতটাকেই খোঁজে

হাত ধরে চলতে শিখিয়েছিলে সে হাত ছেড়ে দিয়েছিলাম চলতে শেখার পর... কিন্তু মনে মনে যে সে হাত ধরেই রেখেছিলাম সে কথা বুঝিনি কখনো। আসলে বোঝার বা ভাবার কারণ না ঘটলে আমরা কিছুই ভাবিনা তো? তাই আর ভেবে দেখিনি অপ্রত্যাশিত ব্যাপারটা যেদিন এক মুহুর্তে হাত ছেড়েদিলে চিরদিনের জন্য সেদিন প্রথম আমার হাত তোমাকে খুঁজল... শিকড়ের টান... Continue Reading →

মুহূর্ত- কবি হতে লজ্জা করে আমার বরং আমি আড্ডাবাগীশ হব

কবি হতে লজ্জা করে আমার বরং আমি আড্ডাবাগীশ হব, কবির ঘরে কেরোসিনের অভাব, কৃষ্ণপক্ষে জোছ্না কোথায় পাব? একেকটা দিন সারা শহর ঘুরে, প্রকাশকের কুঞ্চিত-ভ্রু মেলে, ভাবনাগুলো সিগারেটের ডগায়, দিস্তে দিস্তে পোড়ে আগুন পেলে। কবি এখন পরম আদর পেয়ে জামা কিংবা পাঞ্জাবীতে শোভেন, বইমেলাতে মধ্যমণি হয়ে, পিলসুজেতে সলতে হয়ে জ্বলেন। কবি হতে ঘেন্না নেইকো মোটে, কপাল... Continue Reading →

Powered by WordPress.com.

Up ↑

%d bloggers like this: