পৃথিবীর কোটিপতি ৫ ধনকুবেরের অদ্ভুদ শখ

রিচার্ড ব্র্যানসন ঃ-

পুরো নাম স্যার রিচার্ড চার্লস নিকোলাস ব্র্যানসন, লন্ডনের এই শিল্পপতি ভার্জিন (Virgin) গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা। পৃথিবীর চারশোটি দেশে ব্যবসা ছড়িয়ে রয়েছে। ভার্জিন আটলান্টিক এয়ারওয়েস (Virgin Atlantic Airways)-এর প্রতিষ্ঠাতা এবং ২০০৭ সালে এয়ার এশিয়ার (Air Asia) ২০ শতাংশ শেয়ার কেনেন। তার এয়ার লাইন্সে সফর করা যাত্রীদের প্রতি খেয়াল রাখার ভাবনাও অদ্ভূত যা তার শখও বটে। ব্র্যানসন নিজে এয়ার হোস্টেজ রূপে যাত্রীদের সামনে আসেন। পারফেক্ট এয়ার হোস্টেজ হওয়ার জন্য মেকাআপ, লিপ্সটিক, পায়ের লোম শেভ করতেও ছাড়েন না।

 

সালভাতোর স্যাম ক্যারেতো ঃ-

 

অস্ট্রেলিয়ান মিলিয়নিয়র সালভাতোর ক্যারেতো । তিনি রাতের বেলায় টয়লেট পেপার নিয়ে একটি রেস্টুরেন্টের সামনে প্রতিদিন মল ত্যাগ করে চলে যেতেন। অপমানজনক আচরণে বিরক্ত হয়ে রেস্টুরেন্ট মালিক অবশেষে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা বসান, যা ভেবে উঠতেই তার চার বছর সময় লেগে যায়। ক্যামেরায় দেখা যায় অপরাধী ৭১ বছরের কোটিপতি সম্পত্তির সম্রাট সালভাতোর “স্যাম” ক্যারেতো! সাল্ভাতোরকে লক্ষাধিক টাকা জরিমানা করা হয়।

 

 

ক্লাইভ পালমার ঃ-

অস্ট্রেলিয়ান বিলিয়নিয়র ক্লাইভ পালমার। জুরাসিক পার্ক দেখে তার শখ হয় সেরকমই একটি ডাইনোসর পার্ক বানাবেন তিনি। রাশিয়া, জাপান থেকে বিজ্ঞানীদের এনে আসল ডাইনোসর তৈরীর কাজে লাগান। হাতি, মুরগি, কুমিরের জিন দিয়ে শুরু হয় গবেষণা। কিন্তু পরিশ্রম ও অর্থব্যায়ের পরও এই প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়। অবশেষে দুধের স্বাদ ঘোলে মেটান। কুলাম রিসর্ট এ পামারসোরাস ডাইনোসর পার্ক তৈরী করে ১১৭টি রোবোটিক ডাইনোসর স্থাপন করেন।

হামাদ বিন হামদান আল নাহিয়ান ঃ-

আরবের এই কোটিপতি রেইনবো শেখ (The Rainbow Sheikh) নামে পরিচিত। তার বড় বড় গাড়ি চালানোর শখ, সেই কারণে তিনি এক বৃহদাকার গাড়ি তৈরী করান যার সামনে মানুষকে ক্ষুদ্র মনে হয়। একটি দ্বীপে ১ কিলোমিটার লম্বা জায়গা জুড়ে নিজের নাম (HAMAD) লেখান যেটি জলে পরিপূর্ণ। হামাদের এই নাম গুগল আর্থে সহজেই খুঁজে পাওয়া যায়।

টনি টৌটৌনি ঃ-

ইরানে জন্মগ্রহণ করলেও টনি টৌটৌনি তার ব্যবসা শুরু করেন আমেরিকাতে। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই কোটিপতি হয়ে যান টনি। আয়েসী জীবন যাপনের জন্য দুনিয়া জুড়ে তার পরিচিতি। ২০১৬ সালে টনিকে নিয়ে সোশাল মিডিয়া উত্তাল হয়ে উঠলে ইন্সটাগ্রাম কিং (Instagram King) উপাধি দেওয়া হয়। টনির ১৯টি লাক্সারি গাড়ি, প্রাইভেট জাহাজ, জেট প্লেন এবং অসংখ্য গার্ল ফ্রেন্ড রয়েছে । জলের মত টাকা উড়িয়ে দেন। টাকার সাথেই ঘুমোতে যান টনি।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Powered by WordPress.com.

Up ↑

%d bloggers like this: